মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ০৪:৪৪ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :

ঈশ্বরগঞ্জে আশ্রয়ন প্রকল্পের ঘরে ঝুলছিল প্রতিবন্ধীর লাশ

এহসানুল হক, ঈশ্বরগঞ্জ (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি
  • আপডেট : মঙ্গলবার, ৫ সেপ্টেম্বর, ২০২৩
  • ১৮০ বার পড়া হয়েছে

ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জে আশ্রয়ন প্রকল্পের ঘরে ঝুলছিল প্রতিবন্ধীর লাশ। গত সোমবার আনুমানিক রাত তিনটার দিকে উপজেলার রাজিবপুর ইউনিয়নের ভাটিচরনওপাড়া গ্রামের আশ্রয়ন কেন্দ্রে এ ঘটনা ঘটে। নিহত প্রতিবন্ধী একই গ্রামের আমির হোসেনের ছেলে নজরুল ইসলাম(৫১)। পরে (৫ সেপ্টেম্বর) মঙ্গলবার সকালে খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে মরদেহ উদ্ধার করে ঈশ্বরগঞ্জ থানা পুলিশ। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল আলী ফকির।

নিহতের স্ত্রী বেদেনা(৪৫) বলেন, রাতের খাবার খেয়ে আমি স্বামী-সন্তানকে নিয়ে একসাথে ঘুমাতে যাই। পরে রাতে ছোট ছেলে জীবনকে প্রস্রাব করাতে ওঠে দেখি বিছানায় ছেলের বাবা নেই। ঘরে না পেয়ে দরজা খোলে বারান্দায় গিয়ে দেখি তিনি গলায় ফাঁস দিয়েছেন।

২নং ওয়ার্ড মেম্বার হযরত আলী বলেন, তিনি হার্টের ব্যাধি,আলচার ও কোমর ব্যাথাসহ মানসিক নানা রোগে ভুগছিলেন। হয়তো একারণেই আত্মহত্যার পথ বেচে নিয়েছেন তিনি।

ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল আলী ফকির জানান, নিহত নজরুল ইসলাম দীর্ঘদিন ধরে অসুস্থ ছিলেন। তিনি ছিলেন শারিরীক প্রতিবন্ধী। তিনি লাঠিতে ভর করে হাঁটতেন। নিহতের পরিবারের ধারণা রোগের যন্ত্রণা সইতে না পেরে গভীর রাতে সকলের অগোচরে নিজ ঘরের বারান্দার আড়ার সঙ্গে ওড়না পেচিয়ে আত্মহত্যা করেন।

এ বিষয়ে ঈশ্বরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) পিএসএম মোস্তাছিনুর রহমান বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠনো হয়। পরিবারের পক্ষ থেকে কোন অভিযোগ না থাকায় থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা রুজু করা হয়েছে। সুরতহাল শেষে ময়নাতদন্ত ছাড়াই লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

Please Share This Post in Your Social Media

আরও পড়ুন