সোমবার, ০৪ মার্চ ২০২৪, ১০:১৬ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
মানবকল্যাণ ফোরাম এর ৩য় বর্ষপূর্তি অনুষ্ঠিত ঈশ্বরগঞ্জে ইনোসেন্ট চাইল্ড স্কুলের বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত প্রতারকচক্র ঠেকাতে ভাতা ভোগীদের নিয়ে সচেতনতামূলক সভা উচাখিলা বাজার ব্যবসায়ী কমিটি, সভাপতি সাইফুল সম্পাদক মিজানুর বর্ণাঢ্য আয়োজনে ঈশ্বরগঞ্জে পরিসংখ্যান দিবস উদযাপন ঈশ্বরগঞ্জে মামলা প্রত্যাহার ও মাদক ব্যবসায়ীদের গ্রেফতারের দাবিতে মানববন্ধন ৭ হাজার ভাষার মধ্যে পৃথিবীতে বাংলার অবস্থান কত ঈশ্বরগঞ্জের নতুন ইউএনও প্রিন্স, সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় ঈশ্বরগঞ্জে জমকালো আয়োজনে ‘ঢালাই স্পেশাল সিমেন্ট’র শুভযাত্রা ঈশ্বরগঞ্জে অতিরিক্ত ভাড়া আদায় ঠেকাতে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান

এক মাস সাগরে ভাসার পর ইন্দোনেশিয়ায় নামলো রোহিঙ্গাদের একটি দল

অবারিত বাংলা ডেস্ক
  • আপডেট : সোমবার, ২৬ ডিসেম্বর, ২০২২
  • ৫৯৮ বার পড়া হয়েছে
ছবি- সংগৃহীত

এক মাস সাগরে ভাসার পর রোহিঙ্গাদের একটি দল ইন্দোনেশিয়ার উত্তরাঞ্চলের অচেহ প্রদেশের একটি উপকূলে নেমেছে। এসময় তারা ব্যাপক ক্ষুধার্ত ও দুর্বল ছিল। রোববার (২৩ ডিসেম্বর) ইন্দোনেশিয়ার কর্মকর্তারা এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। খবর আল-জাজিরার।

স্থানীয় পুলিশ প্রধান রোলি ইউইজা বলেন, রোববার ভোরে ৫৮ জনের একটি দল আচেহ প্রদেশের বেসার জেলার মাছ ধরার গ্রাম লাদং-এর ইন্দ্রপাত্র সৈকতে পৌঁছায়। তারা সবাই পুরুষ।
রোলি ইউইজা বলেন, স্থানীয় গ্রামবাসী রোহিঙ্গাদের একটি কাঠের নৌকায় ভাসতে দেখে। তারপর ওই নৌকায় থাকা মানুষদের সেখানে অবতরণ করতে সাহায্য করেন ও স্থানীয় কর্তৃপক্ষকে বিষয়টি জানান।

তিনি বলেন, ক্ষুধা ও পানি শূন্যতার কারণে তারা বেশ দুর্বল হয়ে পড়েন। দীর্ঘদিন ধরে সাগরে থাকায় তাদের মধ্যে অনেকেই অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। তবে এরই মধ্যে তাদের খাদ্য ও পানি সরবরাহ করেছে গ্রামবাসী।
তিনি আরও বলেন, পুরুষদের মধ্যে অন্তত তিনজনকে চিকিৎসার জন্য একটি স্বাস্থ্য ক্লিনিকে নিয়ে যাওয়া হয়েছে ও অন্যরা বিভিন্ন চিকিৎসা নিচ্ছেন।

কিন্তু রোহিঙ্গাদের এই দলটি মিয়ানমার নাকি বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়াদের মধ্যে থেকে গেছে তা এখনো নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

২০১৭ সালে বাংলাদেশের সীমান্ত লাগোয়া রাখাইন রাজ্যে সংখ্যালঘু রোহিঙ্গাদের ঘরবাড়ি পুড়িয়ে দিয়ে, ধর্ষণ ও হত্যা করে জাতিগত নিধন অভিযান চালায় মিয়ানমারের সেনাবাহিনী। সেসময় নির্যাতনের মুখে বাংলাদেশে পালিয়ে আসে সাত লাখের বেশি রোহিঙ্গা। এর আগেও বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছিল মিয়ানমারের কয়েক লাখ মুসলিম সংখ্যালঘু। তারা এখনো তাদের জন্মভূমিতে ফিরতে পারেনি। তাছাড়া রাখাইনে রোহিঙ্গা নির্যাতন অব্যাহত রয়েছে। ফলে প্রায়ই সেখান থেকে নৌপথে বিভিন্ন দেশে পালানোর চেষ্টা করছে তারা।

Please Share This Post in Your Social Media

আরও পড়ুন