সোমবার, ২০ মে ২০২৪, ০৫:০০ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
ঈশ্বরগঞ্জে বোরো ধানের সমলয় প্রদর্শনীর ফসল কর্তন ও মাঠ দিবস পালন ঈশ্বরগঞ্জে ফ্যানের বাতাসে ধান উড়ানোর সময় বিদ্যুৎপৃষ্টে কৃষাণীর মৃত্যু হিট স্ট্রোক আপদ- আ শ মামুন আ.লীগের সংবর্ধনায় সিক্ত ব্যারিষ্টার উম্মি ফারজানা ছাত্তার, দিলেন স্মার্ট ঈশ্বরগঞ্জ বিনির্মানের প্রতিশ্রুতি বাবাদের কাঁধে সন্তানের লাশ, ছেলের মুখ থেকে বাবা ডাক শোনা হলো না শাহ্ আলমের নানা আয়োজনে ঈশ্বরগঞ্জে প্রাণীসম্পদ প্রদর্শনী মেলা অনুষ্ঠিত ঈশ্বরগঞ্জে অবসরপ্রাপ্ত সেনা সদস্যের বাড়িতে হামলা, ভাঙচুর ও লুটপাটের অভিযোগ ঈদের নামাজ পড়ে বাড়ি ফেরার পথে যুবককে ছুরিকাঘাতে হত্যা ঈশ্বরগঞ্জে সেলাইমেশিনসহ ঈদ উপহার পেল ২৩০ পরিবার এতিম শিশুদের মাঝে ঈদ উপহার বিতরণ করলো “জনতার ঈশ্বরগঞ্জ”   

‘স্মার্ট বাংলাদেশ’ গড়ার সহযাত্রী হয়ে স্মার্ট ঈশ্বরগঞ্জ গড়তে চান মাহমুদ হাসান সুমন

এহসানুল হক, ঈশ্বরগঞ্জ (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি
  • আপডেট : বুধবার, ২৫ অক্টোবর, ২০২৩
  • ২১৬ বার পড়া হয়েছে

২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত, সুখী সমৃদ্ধ স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ে তুলতে আওয়ামী লীগ সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার যে ঘোষণা দিয়েছেন, তারই আলোকে ময়মনসিংহ-৮(ঈশ্বরগঞ্জ) আসনে নিরলস কাজ করে যাচ্ছেন উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা চেয়ারম্যান মাহমুদ হাসান সুমন।

উপজেলা আওয়ামী লীগ ও উপজেলা পরিষদের বিভিন্ন পর্যায়ে নেতৃত্ব দিয়ে আসা মাহমুদ হাসান সুমন আগামী জাতীয় নির্বাচনে ময়মনসিংহ-৮(ঈশ্বরগঞ্জ) আসনে আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকার মনোনয়ন প্রত্যাশী।

আসনটিতে মাহমুদ হাসান সুমন সরকারের উন্নয়ন কর্মকাণ্ডের বার্তা পৌঁছে দিতে ওয়ার্ড ভিত্তিক দফায় দফায় করেছেন কর্মী সম্মেলন। প্রতিটি ইউনিয়নের প্রত্যেক ওয়ার্ডে কর্মী সমাবেশ ও গণসংযোগের মধ্য দিয়ে আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের সাথে নিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্মার্ট বাংলাদেশর রূপরেখা তুলে ধরছেন। ব্যানার, পোস্টার ও বিলবোর্ডও সাঁটিয়েছেন পুরো উপজেলায়। আসন্ন সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ থেকে মনোনয়নপ্রত্যাশী সুমন নৌকার সমর্থন আদায়ে গ্রামগঞ্জ চষে বেড়াচ্ছেন।

আওয়ামী লীগের ঘাঁটি হিসেবে পরিচিত এ আসনটি বর্তমানে জাতীয় পার্টির দখলে। তবে এবার নিজ দলের প্রার্থী চান আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা। আর অধিকাংশ নেতাকর্মীর পছন্দ তরুণ আওয়ামী লীগ নেতা উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা চেয়ারম্যান মাহমুদ হাসান সুমন। উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হয়ে তিনি বারবার বিপুল ভোটে জয়ী হন। রাজনৈতিক পরিবার থেকে উঠে আসা তরুণ এ নেতা এরই মধ্যে মানুষের আস্থা অর্জন করেছেন। এলাকার বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মকাণ্ডের পাশাপাশি ব্যক্তিগতভাবেও নানা সাহায্য-সহযোগিতা নিয়ে মানুষের পাশে এসে দাঁড়িয়েছেন।

স্থানীয় ভোটারদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, এই সংসদীয় আসটিতে স্বাধীনতার পরে বেশির ভাগ সময় বাইরের উপজেলা থেকে সাংসদ নির্বাচিত হয়েছেন। ফলে এ উপজেলার মানুষের কাঙ্ক্ষিত উন্নয়ন হয়নি। বর্তমান জাতীয় পার্টির সাংসদকে নিয়ে ভোটারদের মধ্যে রয়েছে নানা প্রশ্ন। তাই আগামী নির্বাচনে তরুণ নেতা মাহমুদ হাসান সুমনকে সাংসদ হিসেবে দেখতে চান তারা।

উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি শেখ ওয়ালি উল্লাহ রাসেল বলেন, মাহমুদ হাসান সুমন ভাই ঈশ্বরগঞ্জের সবচেয়ে জনপ্রিয় নেতা। যার প্রমাণ ঈশ্বরগঞ্জবাসী উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে বারবার দিয়েছে। তাই সুমন ভাইকে নৌকার মাঝি হিসেবে দেখতে চান ঈশ্বরগঞ্জবাসী।

উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক জুনায়েদুল ইসলাম ভূঁইয়া সুমন বলেন, মাহমুদ হাসান সুমন তরুণদের আইডল। তিনি তার প্রজ্ঞা দিয়ে কার্যক্রম পরিচালনা করে সবার কাছে জনপ্রিয় হয়ে উঠেছেন। এই সংসদীয় আসনটিতে উন্নয়নের জন্য মাহমুদ হাসান সুমন ভাইয়ের মতো যোগ্য নেতাকে চায় এলাকাবাসী।

এ বিষয়ে আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে সক্রিয় নেতা ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা চেয়ারম্যান মাহমুদ হাসান সুমন বলেন, ‘পারিবারিকভাবে বঙ্গবন্ধুর আদর্শ বুকে ধারণ করে এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জীবন সংগ্রাম ও দেশ গঠনের অনন্য নেতৃত্বকে রাজনৈতিক জীবনের পাথেয় করে আমি রাজনীতি করে এসেছি। বঙ্গবন্ধু না হলে যেমন স্বাধীন সার্বভৌম বাংলাদেশ রাষ্ট্রর সৃষ্টি হতো না, তেমনি বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনা না থাকলে বদলে যাওয়া আজকের বাংলাদেশও আমরা পেতাম না।তিনি টানা ১৫ বছর রাষ্ট্র পরিচালনা করে পদ্মা সেতু, মেট্রোরেল, এক্সপ্রেসওয়ে, কর্ণফুলী টানেল, রামপাল বিদ্যুৎ কেন্দ্রের মতো বড় বড় প্রকল্প তিনি আমাদের উপহার দিয়েছেন।’
তিনি আরও বলেন, প্রাধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঘোষিত স্মার্ট বাংলাদেশ গঠনে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় শিক্ষিত মেধাবী ও তরুণ নেতৃত্ব প্রয়োজন। স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ার সহযাত্রী হয়ে আমি ঈশ্বরগঞ্জকে স্মার্ট উপজেলা গঠনে ভূমিকা রাখতে চাই।’

Please Share This Post in Your Social Media

আরও পড়ুন